রবিবার, জুলাই ১৪, ২০২৪
spot_img

রমজানে স্কুল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে রিট

আসন্ন রমজান মাসে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় খোলা রাখার সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে একটি রিট করা হয়েছে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি করেন আইনজীবী মো. ইলিয়াছ আলী মন্ডল। রিটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, শিক্ষা সচিব, উপসচিব প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব, উপসচিব শিক্ষা সচিব, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি), শিশু কল্যাণ ট্রাস্টের পরিচালককে বিবাদী করা হয়েছে।

আদালত থেকে বেরিয়ে আইনজীবী মো. ইলিয়াছ আলী মন্ডল বলেন, বাংলাদেশ রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম সংবিধানে উল্লেখ করা আছে। প্রতি বছর পবিত্র রমজান মাসে শিশু-কিশোরসহ সবার শরীর স্বাস্থ্যের বিষয় বিবেচনায় নিয়ে পুরো রমজান মাস শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়। তবে চলতি বছরের পুরো রমজানে মাদরাসা বন্ধ থাকলেও প্রাথমিক বিদ্যালয় রমজানের প্রথম ১০ দিন এবং মাধ্যমিক বিদ্যালয় রমজানের প্রথম ১৫ দিন খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যা সংবিধানের ২৬, ২৭, ২৮, ৩১, ৩২ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এসব কারণে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলাম। কোনো সাড়া না পেয়ে আজ রিট দায়ের করেছি।

এর আগে রমজান মাসে স্কুল খোলা রাখার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা সচিব ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব বরাবরে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. ইলিয়াছ আলী মন্ডল রেজিস্ট্রি ডাকযোগে এই নোটিশটি পাঠান।

নোটিশে বলা হয়, বাংলাদেশের ৯৮ শতাংশ নাগরিক মুসলমান, সংবিধানের ২ এর ক অনুযায়ী ‘প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম’ এবং ৩১ অনুচ্ছেদে আইন ছাড়া কিছুই করা যাবে না, অনুচ্ছেদ ১৫২ (১) আইন অর্থ ‘বাংলাদেশে আইনের ক্ষমতা সম্পন্ন যে কোন প্রথা ও রীতি’ বাংলাদেশ স্বাধীনতার পর থেকে রমজান মাসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে এটিই আইন প্রথা ও নীতি এবং ওইভাবে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাহে রমজান মাসে বন্ধ থাকে। তাই প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় রমজান মাসে খোলা রাখার সরকারের বিতর্কিত সিদ্ধান্ত অসাংবিধানিক।

নোটিশে আরও বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক গত বছরের ১১ ডিসেম্বর দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আসন্ন রমজান মাসে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় কিন্তু সাম্প্রতিক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রমজান মাসে খোলা রাখার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত বৈষম্যমূলক ও সাংঘর্ষিক। যদিও মাদরাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রমজান মাসে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হয়েছে।

নোটিশে আরও বলা হয়, রমজান মাসে শিক্ষকরা রোজা রেখে ক্লাসে লেখাপড়া শেখানো বিষয় মনোযোগী হয় না। এ ছাড়া অভিভাবকগণ রোজা রেখে সন্তানের স্কুলে যাতায়াত করা তাদের জন্য কষ্টকর হবে। স্কুল খোলা রেখে বাচ্চাদের ওপর এমন শারীরিক ও মানসিক চাপ, অত্যাচার অমানবিক। 

বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে রমজান মাসে স্কুল, কলেজ বন্ধ থাকতো। সরকারের বর্তমান সিদ্ধান্ত সংবিধানের ২৬,২৭,২৮,৩১,৩২ অনুচ্ছেদে সাংঘর্ষিক। তাই ওই সিদ্ধান্ত বাতিল ও পবিত্র মাহে রমজানে স্কুল বন্ধ রাখার জন্য এই অনুরোধ করছি।

এসএ

- Advertisement -spot_img

রাজনীতি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আবেদন করতে ব্যানারে ক্লিক করুন...spot_img

সর্বশেষ সব খবর